বিচ্ছেদের কারণ জানালেন তাহসান-মিথিলা



অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিভোর্স হতে যাচ্ছে দেশের জনপ্রিয় তারকা জুটি তাহসান-মিথিলার। গত বেশ কিছু দিন ধরেই তাদের বিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা গেলেও অবশেষে এটি সত্যি হলো। তাহসান ও মিথিলা একসঙ্গে থাকছেন না কয়েক মাস ধরে। এবার বিচ্ছেদের সত্যতার কথা স্বিকার করে নিলেন দুজনই।

এদিকে এক বার্তায় তাহসান ও মিথিলা বলেন, ‘বেশ কয়েকমাস ধরে নিজেদের মধ্যকার দ্বন্দ্ব বা মতবিরোধ নিরসনের চেষ্টার পর আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সামাজিক চাপে একটা সম্পর্ক ধরে রাখার চেয়ে আমাদের আলাদা হয়ে যাওয়াই মঙ্গলজনক।’
ভক্তদের উদ্দেশে তারা বলেন, ‘আমরা বুঝতে পারছি যে, এটা আপনাদের খুব খারাপ লাগবে। সেজন্য আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।  আমরা সবসময় নিজেদের সম্পর্ক সম্মান ও মর্যাদার সঙ্গে বজায় রেখেছিলাম, ভবিষ্যতেও তাই থাকবে। আমরা আশা করি, আপনারা আমাদের পাশে থাকবেন।’
এদিকে বিষয়টি নিয়ে তাহসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘বিচ্ছেধ নিয়ে নিয়ে খুবই কষ্টের মধ্যে আছি আমরা। এরমধ্যে অনলাইনে নানা ধরনের সংবাদ ছড়াচ্ছে। আসলে বিস্তারিত কথা বলার মতো অবস্থায় আমরা নেই। তবে আমরা আমাদের শুভাকাঙ্ক্ষীদের পাশে চাই।’
আজ ২০ জুলাই বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টায় তাহসান তার ভ্যারিফায়েড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেজ থেকে তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে ডিভোর্সের বিষয়টি স্বীকার করে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।
তাহসান ডিভোর্স নিয়ে লিখেছেন, ‘আমরা বেশ কয়েক মাস থেকেই আলাদা থাকছি। গত কয়েকমাস ধরেই বিষয়টি নিয়ে আমরা ভাবছিলাম। অবশেষে সিদ্ধান্ত নিলাম কোন চাপে না থেকে আলাদা থাকার। আমরা জানি আমাদের এই সিদ্ধান্তে অনেকে ব্যথিত হবেন। সে জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি।‘
তিনি আরও লিখেন, ‘আমরা সব সময়ই আমাদের সম্পর্কটা ভালোবাসা ও নীতিবোধের মধ্যে রেখেছিলাম। আশা করবো এই সিদ্ধান্তের পরও সেটা অব্যহত থাকবে। আমাদের এই কঠিন সময়ে আমাদের ভক্তরা আমাদের সাথে থাকবেন বলেই বিশ্বাস করি আমরা।’
গত প্রায় অনেকদিন ধরেই চলছিল এমন গুঞ্জন, যে তাহসান-মিথিলা আলাদা হচ্ছেন কিংবা তারা বিবাহবিচ্ছেদ করবেন।এমনকি গতকাল বুধবার রাত থেকে ফেসবুকে এই খবরটি বেশ ছড়িয়ে যায়। ভক্ত ও সমালোচকরা নানান রকম কথা বলেন ও মন্তব্য করেন। অনেকেরই মনে প্রশ্ন যে কেন? প্রিয় তারকাদের সংসার ভাঙতে দেখতে চায় না তারা। ফেসবুকে এ নিয়ে অনেকেই বেশ কিছু স্ট্যাটাস ও পোস্ট দিয়েছেন।


তাহসানের স্বীকারোক্তি
তবে এর আগে মিথিলাকে চলতি বছরের জুন মাসে এক সাক্ষাৎকারে বিচ্ছেদের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেছিলেন, তাদের সম্পর্কের বিষয় নিয়ে মিডিয়ার মাথা না ঘামালেও চলবে।
মিথিলা বলেছিলেন, ‘কে কি বললো ওগুলো নিয়ে আমি একদমই ভাবি না। মানুষের কথা শোনার সময় আমার নেই। তারা তো কত কথাই বলবে! আমার লাইফ একটা রুটিনে চলে। আমি আমার কাজ আমি করে যাচ্ছি। আমি শুধু সবাইকে এটাই বলব, আমার যদি কিছু বলার থাকে আমরা সোচ্চার হয়ে সবলভাবে বলব। কোন লুকোছাপার কিচ্ছু নেই। এ নিয়ে এতো মাথাব্যথার কোনো কারণ নেই। যাদের বিষয়ে কথা হচ্ছে, আমার মনে হয় মাথাব্যথাটা তাদেরই হওয়া উচিত। বাকি মানুষদের এ বিষয়ে চিন্তাভাবনা না করলেও চলবে। তাদের (তাহসান-মিথিলা) যদি কিছু বলার থাকে, যখন সময় হবে তারাই সব বলবে। যখন সময় হবে কি সত্যি না মিথ্যা সেটা সবাই জানতে পারব। আমি এমন একটা মানুষ যে ফেইক একটা লাইফ লিড করতে পারি না। আর কোনো মিথ্যার আশ্রয়ে আমি এমনিতেও থাকব না।’
তবে মিথিলার এমন কথার তাহসানের ডিভোর্স নিয়ে স্বীকারোক্তি জানান দিচ্ছে তারা সত্যিই আর এক হচ্ছেন না।
উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে প্রেমের শুরু এরপর ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট তারা ভালবেসে বিয়ে করেন। তাদের একটি কন্যা সন্তান আছে। তাহসান জনপ্রিয় গায়ক ও একইসাথে অভিনেতা। মিথিলাও বেশ কয়েকটি গান গেয়েছেন। এছাড়া নিয়মিত মডেলিং ও অভিনয় করেন।



Share
Disclaimer: Gambar, artikel ataupun video yang ada di web ini terkadang berasal dari berbagai sumber media lain. Hak Cipta sepenuhnya dipegang oleh sumber tersebut. Jika ada masalah terkait hal ini, Anda dapat menghubungi kami disini.

LATEST ARTICLES

Post a Comment